ধন্যবাদ কবিতা – আহসান হাবীব

ধন্যবাদ

আহসান হাবীব

না না সেকি প্রচুর খেয়েছি
আপ্যায়ন সমাদর যতটা পেয়েছি
ধারনাই ছিলো না আমার।
ধন্যবাদ।

রাতবেশী এইবার চলি তবে স্যার?
আসবো না?
কী বলেন।
হুজুরের সামান্য কেরানি
দয়া করে ডেকেছেন
এতো আমি ভাগ্য বলে মানি।

খেটে খুটে?
সে কি কথা।
নিজের বাড়ির কাজ,
আর খাটবো না?
চুপ করে খেয়ে যাবো স্যার?

চলি তবে। কী যে মজা,
সত্যি স্যার মজার ব্যাপার।
এমন মজার কথা
এর আগে শুনি নাই আর।

চিঠি পড়ে ভেবেছি
তাহলে ডলি বুঝি আপনার
মেয়েদের কারো ডাক নাম।
তাইতো সামান্য কিছু
চকোলেটও কিনে আনলাম।
এসে দেখি –

তাই নাকি?
চকোলেটও খায় নাকি ডলি?
হতে পারে, সে যাকগে,
সত্যি কথা বলি –

ডলি নাম কুকুরছানার
আজ তার জন্মোত্সব,
সত্যি এক ইউনিক ব্যাপার।

সত্যি নাকি,
ও দেশের ঘরে ঘরে ঘটে থাকে এটা?
তাহলেও বলুন তো এমন
নিঁখুতভাবে সেটা
এদেশে আপনি ছাড়া কে আর দেখালো?
অনেকেই?
হবেও বা সেসব কি জানি?
আপনার অধীনস্থ জনৈক কেরাণী।

দয়া করে ডেকেছেন বলে
তবেই না জানা গেলো, তেমন নাহলে
এওতো আমার পক্ষে জানা
সম্ভব হতো না স্যার।

সত্যি স্যার কুকুরের ছানা,
তার জন্মদিনে এত খরচের হাত-
দু হাজার? তা হবে না?
ও ব্যাটার বাদশাহী বরাত!

হাসবো না?
সে কি স্যার, এমন খুশির দিন আর
আমাদের এ জীবনে বলুন
তো আসে কতবার?
চোখে পানি?
না না স্যার ও কিছু না,
কী জানেন? খেয়েছি এমন শ্বাস
নিতে কষ্ট হয়-

তা হলে এখন
রাতও হলো আপনার বিশ্রাম নেবার সময় হয়েছে,
আজ আসি তবে স্যার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10-5=? ( 5 )